পার্শ্ব শিক্ষকদের চাকরিতে স্থায়ী করার পরিকল্পনার কথা ঘোষণা করেন রাজ্যের শিক্ষামন্ত্রী পার্থ চট্টোপাধ্যায়, বাস্তবতা কতটা ?

পার্শ্ব শিক্ষকদের চাকরিতে স্থায়ী করার পরিকল্পনার কথা ঘোষণা করেন রাজ্যের শিক্ষামন্ত্রী পার্থ চট্টোপাধ্যায়, বাস্তবতা কতটা


পার্শ্ব শিক্ষকদের চাকরিতে স্থায়ী করার পরিকল্পনার কথা ঘোষণা করেন রাজ্যের শিক্ষামন্ত্রী পার্থ চট্টোপাধ্যায়, বাস্তবতা কতটা

নিউজ ৩০ : রাজ্যে নিয়োগ ও বেতন বৃদ্ধি নিয়ে বিতর্ক চলে আসছে বেশ কয়েক বছর ধরে। যদিও সেই সব অভিযোগকে কোনও দিন গুরুত্ব দেয় নি রাজ্য সরকার। এবারের লোকসভা নির্বাচনে ধাক্কা খায় শাসক দল তৃণমূল কংগ্রেস। রাজ্যে ফুটেছে পদ্ম। সামনের বিধানসভা নির্বাচন খুব একটা সহজ হবে না শাসক দলের কাছে। বুঝে গিয়েছেন তৃণমূল নেত্রী।

এই নির্বাচনে ধাক্কা খাবার পরে নিয়োগ ও বেতন বৃদ্ধি নিয়ে কিছু প্রতিশ্রুতি দেয় রাজ্য সরকার।
কিন্তু সেই প্রতিশ্রুতি বাস্তবে কতোটা পূরণ করবে সরকার তা নিয়ে প্রশ্ন থেকেই যায়। কারণ এর আগেও বহু বার প্রতিশ্রুতি দিয়ে তা পূরণ করেনি সরকার। আর এবার পুরসভার এক অনুষ্ঠানে যোগ দিয়ে পার্শ্ব শিক্ষকদের চাকরিতে স্থায়ী করার পরিকল্পনার কথা ঘোষণা করেন রাজ্যের শিক্ষামন্ত্রী পার্থ চট্টোপাধ্যায়। এতে খুশি রাজ্যের কর্মরত পার্শ্ব শিক্ষকদের অনেকেই। কিন্তু পার্শ্ব শিক্ষকদের অপর একটা অংশ পার্থ বাবুর এই প্রতিশ্রুতিকে খুব একটা গুরুত্ব দিতে না রাজ। তাদের কথা অনুসারে, ” আগে করে দেখাক সরকার। তার পরে বিশ্বাস করা হবে শিক্ষামন্ত্রীর কথা।”

প্রসঙ্গত, পার্শ্ব শিক্ষকদের বেতন বৃদ্ধি এবং চাকরিতে স্থায়ীকরণের দাবি অনেকদিনের। এবার তাঁদের সেই দাবি নিয়ে ভাবছে সরকার। শিক্ষামন্ত্রী পার্থ চট্টোপাধ্যায়ের কথায় তেমন ইঙ্গিত পাওয়া গেল।
শিক্ষামন্ত্রী পুরসভার উদ্যোগে অনুষ্ঠিত এক সভায় হাজির হয়ে বলেন, পার্শ্ব শিক্ষকদের বেতন বৃদ্ধির থেকেও তাঁদের স্থায়ীকরণ করাটা অনেক বেশি গুরুত্বপূর্ণ। আর রাজ্য সরকার সেই উদ্যোগ নিচ্ছে।
পার্শ্ব শিক্ষকদের আন্দোলন প্রসঙ্গে তৃণমূলের মহাসচিব তথা রাজ্যের শিক্ষামন্ত্রী বলেন, পার্শ্ব শিক্ষকদের আগে যা বেতন ছিল বর্তমান সরকারের আমলে তা অনেকটাই বেড়েছে।

ওই সভাতে পার্থ বাবু ছাড়াও উপস্থিত ছিলেন, সাংসদ কাকলি ঘোষদস্তিদার, মধ্যমগ্রামের বিধায়ক তথা পুরসভার চেয়ারম্যান রথীন ঘোষ সহ একাধিক স্থানীয় নেতারা।

Leave a Comment